বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন

করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত করা হচ্ছে সৈয়দপুর রেলওয়ে হাসপাতাল

করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত করা হচ্ছে সৈয়দপুর রেলওয়ে হাসপাতাল

শাহজাহান আলী মনন/ নীলফামারী/ ৮ জুন 

নীলফামারীর সৈয়দপুরে অবস্থিত রেলওয়ে হাসপাতালে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা ও শনাক্ত রোগীর চিকিৎসার জন্য প্রস্তত করা হচ্ছে। এলাকাবাসীর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রেলপথ মন্ত্রণালয় এই নির্দেশনা দিয়েছে।
দেশের বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানাকে কেন্দ্র করে গড়ে তোলা হয় সৈয়দপুর রেলওয়ে হাসপাতালটি। একসময় চিকিৎসা সেবায় হাসপাতালটির সুনাম ছিল এবং কর্মচঞ্চল ছিল এর কার্যক্রম  বর্তমানে রেলওয়েতে কর্মকর্তা-কর্মচারী কমে যাওয়ায় প্রায় অলস পড়ে আছে হাসপাতালটি।
৮২ শয্যার ওই হাসপাতালে পদ ছিল ১৫২ জনের। কিন্তু দিন দিন রেলওয়েতে কর্মরতদের সংখ্যা কমে যাওয়ায় মুখ থুবড়ে পড়ে হাসপাতালটি। বর্তমানে হাসপাতালটি রোগীশূন্য হলেও কর্মরত আছেন ৭৬ জন। অপারেশন থিয়েটার, এক্সরে রুম, সার্জারি ওয়ার্ড, সাধারণ ওয়ার্ড, মহিলা ওয়ার্ড, কেবিনসহ চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা রয়েছে হাসপাতালটিতে। তাই করোনা দুর্যোগের সময় হাসপাতালটিতে এই সংক্রান্ত সেবা চালু করতে মন্ত্রণালয়ে অনুরোধ জানান সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিনসহ কয়েকজন।
ইতোপূর্বে এই হাসপাতালটিকে মেডিকেল কলেজে রুপান্তর করার ঘোষনা দিয়েছিলেন ততকালীন রেলপথ মন্ত্রী মজিবর রহমান। সে অনুযায়ী প্রকল্প প্রস্তাবনাও পেশ করা হয়। কিন্তু আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় বিষয়টি ফাইলবন্দি হয়ে আছে। এমতাবস্থায় হাসপাতালটি করোনাকালীন দুর্যোগ মুহুর্তে কাজে লাগানোর জন্য উদ্যোগ গ্রহণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত বলে মনে করছে সৈয়দপুরবাসী। তারা এ পদক্ষেপেব দ্রুত বাস্তবায়ন চায়। মেডিকেল কলেজ করার ঘোষণার মত যেন স্থগিত হয়ে না যায়।
সৈয়দপুর রেলওয়ে হাসপাতালের বিভাগীয় চিকিৎসা কর্মকর্তা আনিসুল ইসলাম বলেন, হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা কম। কিন্তু হাসপাতালের যাবতীয় অবকাঠামো ও চিকিৎসা সরঞ্জাম আছে। চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে এবং আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করলে হাসপাতালটিতে করোনার নমুনা পরীক্ষা ও রোগীর চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হবে।
বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) মিহির কান্তি গুহ বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে কমলাপুর ও চট্টগ্রাম রেলওয়ে হাসপাতালকে ব্যবহার করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবং স্থানীয়দের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রেলপথ মন্ত্রণালয় সৈয়দপুর রেলওয়ে হাসপাতালটিকে ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত করতে নির্দেশনা দিয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের চাহিদা মোতাবেক তা ব্যবহার করা হবে।
এনপি৭১

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah