মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০১:০২ পূর্বাহ্ন

গ্রামে গ্রামে ঘুরে মানুুষকে সচেতন করছেন সাংবাদিক সোহেল

গ্রামে গ্রামে ঘুরে মানুুষকে সচেতন করছেন সাংবাদিক সোহেল

এনপিনিউজ৭১/নিজেস্ব প্রতিবেদক/ ১৯ এপ্রিল রংপুর

মরণঘ্যাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে রংপুর নগরীর বিভিন্ন স্থানে ও গ্রামে গ্রামে ঘুরে ঘুরে জীবনের ঝুকি নিয়ে মানুুষকে সচেতন করছেন সাংবাদিক হারুন উর রশিদ সোহেল। ইতিমধ্যেই তিনি দৈনিক আমাদের প্রতিদিন ও কারুপণ্যের সহযোগিতায় রংপুর নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ডের শরেয়ারতল, মোল্লাপাড়া, মিলনপাড়া, ধর্মদাস সর্দারপাড়া, তালুক তামপাট দোলাপাড়া, বড়বাড়ি, আরাজী তামপাট, বড় রংপুর, পাঠানপাড়া, চেয়ারম্যানপাড়া, নগর মীরগঞ্জ, নতুন বাজার, টেপরুর মোড়, তালুক তামপাট, কবিরাজপাড়া, মুসলিমপাড়াসহ ২৮ নং ওয়ার্ডের চকবাজার, তাজহাট, গলাকাটা মোড়, আশরতপুর, পার্কের মোড়, কামারের মোড়, এরশাদ নগর, লালবাগ, ১৫ নং ওয়ার্ডের মর্ডাণ মোড়, চাঁদ বাজার, ঘাঘটপাড়া, ৩১ নং ওয়ার্ডের শেখপাড়া, ডোবারপাড়া, নাজির দিঘর, ২৯ নং ওয়ার্ডের মাহিগঞ্জ, ডিমলা কানুগোটলা, বড় রংপুর পাকারমাথা, রংপুর সদর উপজেলার পালিচড়াহাট, জানকি ধাপেরহাট, পীরগাছা উপজেলার বাজার, দেউতি, সৈয়দপুর, হাউদারপাড়, বড়রদরগাহ, মিঠাপুকুর উপজেলার ভক্তিপুর,পায়রাবন্দ, ভাংনী মাঠেরহাট, কাউনিয়া উপজেলার বালাপাড়া, খোপাতিসহ রংপুর নগরী ও জেলা-উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম গ্রামে ঘুরে বিনামূল্যে ১২ হাজার মাস্ক ও জনসচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরণ করেছেন। তার জনসেচতনতা মূলক প্রচারণার পাশাপাশি সম্প্রতি নিজের অর্থায়নে প্রায় দুই শতাধিক পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী দিয়েছেন।

এসময় সবাইকে সঠিক নিয়মে সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধোয়া, হাঁচি কাশির সময় আলাদা কাপড় বা রুমাল ব্যবহার করার পরামর্শ। সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব মেনে বাইরে না গিয়ে ঘরে থেকে করোনায় করণীয় সম্পর্কেও সচেতন করার চেষ্টা করছেন সাংবাদিক সোহেল।

সাংবাদিক হারুন উর রশিদ সোহেল বলেন, আমার বাড়ি গ্রামে, লোকজনের অসাবধানতা দেখে নিজেই উদ্যোগ নিলাম তাদের সতর্ক করতে। পরে দৈনিক আমাদের প্রতিদিনের সম্পাদক-প্রকাশক মাহবুব রহমান হাবু ভাইয়ের সহযোগিতায় কারুপণ্যের তৈরি ১২ হাজার মাস্ক বিনামূল্যে বিতরণ করি। সেই সাথে জনসচেতনতা মূলক লিফলেটও গ্রামে-বাজারে, সবার বাড়ি গিয়ে বিতরণ করেছি। সবাইকে বোঝানোর চেষ্টা করছি। এটা গজব নয় মহামারী। এটার জন্য দরকার সাবধান থাকা। সচেতন থাকা।

এদিকে সাংবাদিক হারুন উর রশিদ সোহেলের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান গ্রামের মানুষ। তারা বলছেন, অনেকের মধ্যেই করোনা নিয়ে ভুল ধারণা ছিলো। এখন সবাই অনেকটা সতর্ক।

নগরীর শরেয়ারতল গ্রামের রফিকুল ইসলাম মুনশি, মোল্লাপাড়ার আতাউর রহমান ও তাজহাট গলাকাটা মোড়ের জাহিদ তাহসান বলেন, সাংবাদিক সোহেল করোনা ভাইরাসের শুরু থেকেই সচেতনতার বার্তা শোনাচ্ছেন। মানুষকে বাড়িতে থাকতে উদ্বুদ্ধ করছেন। বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে ঘুরে ঘুরে মানুুষকে সচেতন করছেন, মাস্ক দিয়েছেন তা সত্যিই প্রশংসিত।

মিঠাপুকুর উপজেলার ভাংনী মাঠেরহাটের মিজানুর রহমান বলেন, করোনা ভাইরাসের শুরু থেকে সাংবাদিক সোহেল যেভাবে নিজের কথা না ভেবে মানুষকে সচেতন করতে গ্রামে গ্রামে ঘুরছেন। বিনামূল্যে মাস্ক দিচ্ছেন। সচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরণ করছেন। এজন্য তাকে সাধূবাদ জানাই। রংপুর সদর উপজেলার জানকি রামজীবন গ্রামের মনজুরুল ইসলাম ও পালিচড়া কেশবপুর গ্রামের কোহিনুর রহমান বলেন, এই ভাইরাস যে আমাদের নিজেদের ভুলে ছড়াবে, এইটা জানা ছিল না। এখন তো জানি এটা গজব নয়। এই করোনা থাকি বাঁচাতে মুখে কাপড় দিতে হবে, হাতও ধোয়া লাগবে, সাবধানও থাকা লাগবে।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক হারুন উর রশিদ সোহেল রংপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সাবেক সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সম্পাদক, রংপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ, তাজহাট থানা প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটিসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেন।

এনপি৭১/মেহি


© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah