সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৯ অপরাহ্ন

চলতি সপ্তাহেই সৈয়দপুরে পৌঁছবে ঘন্টায় ১৪০ কিলো গতির ট্রেন!

চলতি সপ্তাহেই সৈয়দপুরে পৌঁছবে ঘন্টায় ১৪০ কিলো গতির ট্রেন!

এনপি নিউজ ৭১ ডেক্সঃ

বড্রগেজ লাইনে ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটার গতিতে ছুটবে ট্রেন। ট্রেনগুলোতে থাকছে বায়োটয়লেট।প্রতিটি কামরা নিয়ন্ত্রিত হবে কম্পিউটারের মাধ্যমে। ফলে দীর্ঘ দিনের মানব বর্জ্য থেকে মুক্তি পাবে দেশের রেল পথ। আর কোচগুলো থাকবে অনেকটাই জীবানু মুক্ত।

আগামী দু-একদিনের মধ্যেই এই আধুনিক গতিসম্পন্ন ট্রেনগুলো পৌছবে নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে অবস্থিত দেশের বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানায়। সেখানেই পীরক্ষা করা হবে ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানিকৃত এই ট্রেনগেুলোর মান। যাচাই করা হবে বিদ্যমান ব্রডগেজ লাইনে কতটা গতিতে ছুটতে পারবে এই ট্রেন।

এ বিষয়ে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) জাহিদুল ইসলাম জানান, আধুনিক ওই কোচগুলো দুই-একদিনের মধ্যে সৈয়দপুর কারখানায় এসে পৌঁছাবে। এখানে ডি-প্রসেসিং (রক্ষণাবেক্ষণ) এবং যাবতীয় যান্ত্রিক নিরীক্ষা সম্পন্ন হবে। এর পর লোড ম্যানেজমেন্ট ঠিক আছে কিনা, তা দেখার জন্য অনুষ্ঠিত হবে ট্রায়াল রান (পরীক্ষামূলক দৌড়)। সব রকম নিরীক্ষা শেষে এসব চলে যাবে রেলপথে।

রেলওয়ে ট্রাফিক বিভাগ জানিয়েছে, আধুনিক ও দ্রুতগতি সম্পন্ন ওই কোচের পুরো চালান দেশে এসে পৌঁছালে তা দিয়ে চালানো হবে বেশ কয়েকটি ট্রেন। অত্যন্ত পুরাতন কোচ দিয়ে যেসব আন্তঃনগর ট্রেন চলছে সেসবের জায়গায় প্রতিস্থাপিত হবে ওই কোচগুলো। আগামী তিন মাসের মধ্যে নতুনভাবে ট্রেন বহরে কোচগুলো ব্যবহার হবে।

রেলওয়ের প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী (সিএমই) হারুনুর রশিদ জানান, ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন রেল গ্যারেজ (কোচ) নির্মাণ প্রতিষ্ঠান পিটি ইন্ডাস্ট্রি কেরেতা এপি (ইনকা) এই কোচগুলো তৈরি করেছে। ব্রডগেজ লাইনের জন্য ৫০টি কোচ আমদানি করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৫টি কোচ জাহাজযোগে চট্টগ্রাম বন্দরে হয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা-টঙ্গী জংশনে আনা হয়। সেখান থেকে ট্রান্সশিপমেন্ট (স্থানান্তর) করে ব্রডগেজ লাইনে সৈয়দপুরে নেয়া হচ্ছে। এই লাইনে প্রতি মিনিটে ২.৩৩ গতিতে চলতে সক্ষম হবে এসব কোচ। ফলে ট্রেনের গতি হবে ঘণ্টায় ১৪০ কিলোমিটার।

প্রসঙ্গত, ইন্দোনেশিয়ার প্রতিষ্ঠান পিটি ইন্ডাস্ট্রি কেরেতা এপি (ইনকা)বাংলাদেশের জন্য এরই মধ্যে ২৫০টি কোচ নির্মাণ করেছে। এরমধ্যে ২০০টি মিটারগেজ (ছোট) ও ৫০টি ব্রডগেজ (বড়) লাইনের। ব্রডগেজ লাইনের ৫০টি কোচ আমদানিতে ব্যয় ধরা হয়েছে ২১৩ কোটি টাকা। আর প্রতিটি কোচের গড় দাম পড়েছে প্রায় ৫ কোটি টাকা।

এনপি/আইসিএম


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution