Just IN :

জয়পুরহাটে ৭২ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

জয়পুরহাটে ৭২ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

জয়পুরহাটে ৭২ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

৪ নভেম্বর, ২০১৯ (বাসস): খাদ্যে উদ্বৃত্ত জেলা জয়পুরহাটে নিবিড় বার্ষিক ফসল উৎপাদন কর্মসূচীর আওতায় চলতি ২০১৯-২০২০ রবি ফসল চাষ মৌসুমে ৭২ হাজার দু’শ হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করেছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অনুসারে- ৬২ হাজার আটশ’ হেক্টর জমিতে উচ্চ ফলনশীল (উফশী) জাতের এবং নয়হাজার চারশ’ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড জাতের বোরো ধান চাষ করা হবে। আর চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে তিনলাখ ৩৩ হাজার নয়শ’ নয় মেট্রিকটন।

কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলা ভিত্তিক বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ি- সদর উপজেলায় ১৬ হাজার ৮৩৫ হেক্টর, পাঁচবিবিতে ১৯ হাজার ৯২০ হেক্টর, আক্কেলপুরে ১০ হাজার ৩৭০ হেক্টর, ক্ষেতলালে ১১ হাজার ৪১০ হেক্টর এবং কালাই উপজেলায় ১৩ হাজার ৬৬০ হেক্টর জমিতে বোরো চাষ করা হবে।

এদিকে, জেলায় বোরো’র চাষ সফল করতে কৃষি বিভাগ সারের চাহিদা নির্ধারণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে ইউরিয়া ১৯ হাজার সাতশ’ ২০ মে. টন, টিএসপি ১৪ হাজার আটশ’ মে. টন, এমওপি নয়হাজার সাতশ’ ৭৬ মে. টন, জিপসাম নয়হাজার মে. টন এবং জিংক সার সাতশ’ ৯২ মে. টন।

পাশাপাশি, বিএডিসি (বীজ) কৃষকদের মাঝে উন্নত জাতের বীজ সরবরাহের ব্যবস্থা করেছে। এছাড়াও, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকসহ অন্যান্য ব্যাংক বোরোসহ অন্যান্য শীতকালীন ফসল চাষে কৃষকের মাঝে কৃষি ঋণ বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে বলে।
জেলায় কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপপরিচালক সুধেন্দ্র নাথ রায় জানান, বোরো চাষ সফল করতে কৃষক মাঠ স্কুলের মাধ্যমে কৃষকদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও উপকরণ সরবরাহ করা হচ্ছে।

Related Posts