মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫০ অপরাহ্ন

দুই পায়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে রাবির সামির।

দুই পায়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে রাবির সামির।

ক্যাম্পাস প্রতিনিধিঃ
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সামির উদ্দীনকে একটি কৃত্রিম পা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে রাজশাহীর সেন্টার ফর দি রিহ্যাবিলিটেশন অব দি প্যারালাইজড (সিআরপি) নামের একটি সংস্থা।

রোববার সন্ধ্যায় নগরীর কোর্ট এলাকায় সংস্থাটির কার্যালয়ে সামিরের পায়ের মাপ নিয়ে ঢাকায় কৃত্রিম পায়ের অর্ডার দিয়েছে সংস্থাটি। ফলে নতুন দুই পায়ে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে সামির।

সামির রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায়। ভোরনিয়াদিহট গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে তিনি। ২০১২ সালে পড়ালেখার খরচ জোগানোর জন্য জমিতে কাজ করতে গিয়ে ট্রাক্টরের নিচে পড়ে একটি পা হারান। এরপর একটি সংস্থা তাকে কৃত্রিম পা লাগিয়ে দেন। মাসখানেক হলো সেই পায়ের কার্যকারীতা শেষ হয়ে যায়।

কৃত্রিম পা পেয়ে অস্রুশিক্ত চোখে সামির বলেন, “মাসখানেক হলো কৃত্রিম পায়ের কার্যকারীতা শেষ হয়ে যাওয়ায় নতুন পা কেনা নিয়ে খুবই চিন্তিত ছিলাম। এই মুহূর্তে সিআরপি সংস্থার পক্ষ থেকে আমাকে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরার জন্য নতুন একটি পায়ের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে। এখন আমার হাঁটাচলা অনেক সহজ হবে। আমি সংস্থাটির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।”

সিআরপির রাজশাহী বিভাগের কেন্দ্র ব্যবস্থাপক সোমা বেগম বলেন, “ওকে (সামির) আমাদের পক্ষ থেকে কৃত্রিম পায়ের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে। পা লাগানোর পর ওর প্রশিক্ষণ নিতে হবে। আমরা চাই সকল প্রতিবন্ধীই সক্ষমতা অর্জন করুক। আর দশটা মানুষের মতো সামিরও স্বাভাবিক জীবনযাপন করুক, আমাদের মতোই চলাফেরা করুক এটাই আমাদের প্রত্যাশা।”

গত ১ ফেব্রুয়ারি গণমাধ্যমে ‘টাকার অভাবে কৃত্রিম পা কিনতে পারছেন না রাবি শিক্ষার্থী সামির’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়।

এনপি/ সিএম


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution