মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০১:২০ পূর্বাহ্ন

ফনী আতংকের মাঝেই জারি হলো ‘প্রবল ভুমিকম্প’র’ আরেক আশংকা!

ফনী আতংকের মাঝেই জারি হলো ‘প্রবল ভুমিকম্প’র’ আরেক আশংকা!

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ফণীর গতি প্রকৃতি নিয়ে যখন টান টান উত্তেজনা আর অনাকাংখিত কিছুর আশঙ্কায় সঙ্কিত হয়ে পড়েছে ভারত-বাংলাদেশে দুই দেশের মানুষ ঠিক তখনি অনেকটা ‘মরার উপর খরার ঘা’ হয়ে জারি হলো আরও এক আতংক । এই আতংক বা আশংকার নাম প্রবল ভুমিকম্প।

ডিট্রিয়ানাম নামের একটি সংস্থা গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থান বিশ্লেষণ করে দাবি করছে, আজ শুক্রবার হতে পারে প্রবল ভূমিকম্প । আবহাওয়া দফতরের মতো ভূমিকম্পের পূর্বাভাস দেয় ডিট্রিয়ানাম নামের এই সংস্থাটি।

পৃথিবীর কেন্দ্র থেকে উঠে আসতে পারে বড়সড় কম্পন। যা মারাত্মক ক্ষতির মুখে ফেলতে পারে বিশ্বকে৷ আজ শুক্রবার এবং শনিবার দুদিনের মধ্যে ৮ মাত্রার একটি ভূমিকম্পের সতর্কবার্তাই দিয়েছেন ভূতত্ববিদরা৷

ফণীর আঘাত থেকে বাঁচতে ইতোমধ্যেই জারি হয়েছে উচ্চ সতর্কতা। মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। দুই দেশের সরকার আগাম সতর্কতা হিসেবে নিয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। আর এর মধ্যেই জারি হলো প্রবল ভূমিকম্প সতর্কতা।

ডিট্রিয়ানাম তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভুমিকম্পের সতর্কতা প্রকাশ করে জানিয়েছে, বুধ, শুক্র ও নেপচুন গ্রহ এখন একই সরল রেখায় অবস্থান করছে। তাছাড়া আরও আছে পৃথিবী, চাঁদ ও নেপচুন। আর এর ফলে শুক্রবার বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে হতে পারে প্রবল ভূমিকম্প।

রিখটার স্কেলে কম্পনের প্রবল এই ভূমিকম্পের মাত্রা হতে পারে ৮। সংস্থাটি জানিয়েছে, ঠিক একই অবস্থানে গত শতাব্দীর শুরুতে ১৯০৬ সালে ভূমিকম্প হয়েছিল দক্ষিণ আমেরিকায়।

ডিট্রিয়ানাম জানিয়েছে, সৌরজগতের অবস্থানগত কিছু পরিবর্তনের জন্য পৃথিবীতে এই ভূমিকম্প দেখা দিতে পারে৷ বৈজ্ঞানিক পরিভাষায় একে বলা হচ্ছে ক্রিটিক্যাল জিওমেট্রি৷ ভূমিকম্প বিষয়ক ওয়েবসাইট ডিট্রিনিয়াম জানাচ্ছে সৌরজগতে বুধ, মঙ্গল ও নেপচুন গ্রহের অবস্থানগত পরিবর্তনের কারণে ফল ভুগতে হতে পারে পৃথিবীকে৷ ভূতত্ববিদদের দাবী এসময় পরিবর্তন হবে সূর্যের অবস্থানেরও৷ ফলে এর সরাসরি প্রভাব পড়বে পৃথিবীর ওপর৷

গ্রহ ও সূর্যের পারস্পরিক টান ও মাধ্যকর্ষণ শক্তির বাড়া কমার প্রভাবেই এই কম্পনের সূত্রপাত বলে জানা গিয়েছে।


© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah