মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:০৭ অপরাহ্ন

ফাঁদ পাততেন স্ত্রী, চাঁদা নিতেন স্বামী

ফাঁদ পাততেন স্ত্রী, চাঁদা নিতেন স্বামী

নিউজ ডেক্সঃ

রংপুরে ফাঁদ পেতে সাধারণ মানুষদের জিম্মি করে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৩। এ সময় তাদের একটি টর্চার সেলেরও সন্ধান পায় র‌্যাব। সেখান থেকে বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) বিকেলে র‌্যাব-১৩ এর সহকারী পরিচালক মাহমুদ বশির আহমেদ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব বিষয় জানানো হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- শাহারুখ করিম অনিক (৩৪) ও তার স্ত্রী আসমানী আক্তার (২৪)।

র‌্যাবের পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বেশ কিছুদিন যাবত অনিকের স্ত্রী আসমানী রংপুর মহানগরীর বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে পরিচয় হয়ে কৌশলে তাদের আস্তানায় ডেকে নিয়ে যেতেন। এরপর অনিকসহ অজ্ঞাত চার-পাঁচজন ওইসব ব্যক্তির অশ্লীল ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ছড়িয়ে দেওয়া এবং হত্যার ভয় দেখিয়ে চাঁদা আদায় করতেন। এভাবেই লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এ চক্রটি।

এমন একটি অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৩ বিষয়টি আমলে নিয়ে সত্যতা অনুসন্ধানের জন্য তাৎক্ষণিক ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং জিম্মিকারী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ায়। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাবের একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে রংপুর মহানগরীর গ্র্যান্ড হোটেল মোড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা তাদের গ্রেফতার করে।

অভিযান চলাকালে র‌্যাব তাদের বাসার ষষ্ঠ তলায় একটি টর্চার সেলের সন্ধান পায়। এ সেল থেকে দুটি চাপাতি, ইলেকট্রিক শকের তার, মাদক সেবনের সরঞ্জামাদি, হাতুড়ি, ছুরি, স্ট্যাম্প, ভিডিও ধারণের দুটি মোবাইল ফোন এবং একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার দম্পতি বিভিন্ন ব্যক্তিদের জিম্মি করে চাঁদা আদায় এবং নির্যাতনের কথা স্বীকার করেছেন। সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দিয়ে আটকদের হস্তান্তর করা হয়েছে। তাদের সহযোগীদেরও আইনের আওতায় আনতে র‌্যাবের কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

এ বিষয়ে রংপুর মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হোসেন আলী বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতার দুজনকে আজ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution