বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন

বিয়ের দাবিতে পুলিশ সদস্যের বাড়িতে কলেজ ছাত্রীর অনশন

বিয়ের দাবিতে পুলিশ সদস্যের বাড়িতে কলেজ ছাত্রীর অনশন

নিউজ ডেক্সঃ

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা ইউনিয়নে বিয়ের দাবীতে এক পুলিশ সদস্যের বাড়িতে নীলফামারীর কলেজ ছাত্রী ৩ দিন ধরে অবস্থান করছে।

এই ঘটনাটি ঘটেছে গত ৫ আগস্ট রবিবার সন্ধ্যায়। জানা যায়, বিয়ের দাবীতে অবস্থান নেয়া কলেজ ছাত্রী লিপি নীলফামারীর ডোমার সরকারি কলেজর অনার্স ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী। লিপি ডোমার থানার নাউতাড়া গ্রামের মেয়ে। তার পিতার নাম রফিকুল ইসলামে। অভিযুক্ত ওই পুলিশ সদস্য রাশেদ নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা ইউনিয়নের নায়কের হাট মন্ডলপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ওই এলাকার কুশাই মিয়ার ছেলে।

কলেজ ছাত্রী লিপি জানায়, ২০১৮ সালে আমার উচ্চ মাধ্যমিক ফাইনাল পরীক্ষা চলাকালীন সময় ওই পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্বরত ছিল কনস্টেবল রাশেদ। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কেন্দ্রেই তাদের পরিচয় হয়। একসময় পরিচয়ের সূত্র ধরে রাশেদের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেই থেকে আমরা একসাথে চলাফেরা এবং মেলামেশা করেছি। আমাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এখন সে এড়িয়ে চলছে। গত ৩ মাস থেকে আমার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে রাশেদ । এবং অন্যত্র বদলি হয়ে গেছে। রাশেদের দেয়া ঠিকানা অনুযায়ী আমি তার বাড়িতে এসেছি। বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত আমি এখান থেকে যাবো না।

কিন্তু রাশেদের বাড়ির লোকজন মেয়েটিকে জোরপূর্বক বাড়ির বাইরে বের করে দিয়ে গেট বন্ধ করে দেয়। এমত অবস্থায় কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সেজন্য ওই রাতেই কচাকাটা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মেয়েটিকে নিজ বাড়ীতে হেফাজতে নেন। ৩ দিন থেকে মেয়েটি চেয়ারম্যানের বাড়িতেই রয়েছেন।


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution