বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:০২ অপরাহ্ন

বেড রিলেশন ও ব্ল্যাকমেইলিং সিন্ডিকেটের নারীসহ দুই সদস্য গ্রেফতার

বেড রিলেশন ও ব্ল্যাকমেইলিং সিন্ডিকেটের নারীসহ দুই সদস্য গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
রাজধানীর পর এবার রংপুরেও বেড রিলেশন এবং ব্ল্যাকমেইলিং করে অর্থ হাতিয়ে নেয়া সিন্ডিকেটের নারীসহ দুইজনকে গ্রেফতার করছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। এই চক্রটি দীর্ঘদিন থেকে এভাবে রংপুর মহানগরীসহ বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় বাসাবাড়ি ভাড়া নিয়ে প্রতারণা করে আসছে বলেও জানাচ্ছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকেলে রংপুর মহানগর গোয়েন্দা কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিয়ে এই তথ্য জানান মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) কাজী মোত্তাকি ইবনু মিনান। তিনি জানাচ্ছেন, গ্রেফতারকৃতরা হলেন সেবিকা পরিচয়ধারী দিনাজপুরের খানসামার কাচনিয়া এলাকার কাশেম আলীর কন্যা শাহীনা বেগম ওরফে শিলা (৩৩) এবং তার স্বামী বোচাগঞ্জের সেতাবগঞ্জ মিলের পাড় এলাকার আব্দুল মোমিন (৩৪)। তাদেরকে রংপুর মহানগলীর কটকি পাড়ার পিটিআই রোডের বাসা নং-৩১৬-৩ এ থেকে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে গ্রেফতার করা হয়। ওই বাড়ির নিচতলা ভাড়া নিয়ে তারা এই ব্লাকমেইলিং করে টাকা হাতিয়ে নিতো।
গোয়েন্দা পুলিশ কর্মকর্তা মিনান আরও জানাচ্ছেন, প্রতারণা শিকার ফারুক হোসেন নামের এক স্কুল শিক্ষকের মামলার সূত্র ধরে তাদের গ্রেফতার করা হয়। কিছুদিন আগে দিনাজপুরের পপুলার ডায়াগোনোস্টিক সেন্টারের স্ত্রীর দাঁতের চিকিৎসা করাতে গিয়ে সেবিকা পরিচয়ধারী শাহীনা বেগম শিলার সাথে পরিচয়ের পর মোবাইল নম্বর লেনদেন হয় ওই স্কুল শিক্ষকের। পরে তাকে মোবাইলে যোগাযোগের মাধ্যমে রংপুরে দাঁতের ভালো চিকিৎসা করানোর কথা বলে শিলাকে গত ১১ আগস্ট রংপুরে ডেকে আনেন শিলা। চিকিৎসক আসতে বিলম্ব হওয়ার কথা বলে কৌশলে কটকিপাড়ায় কথিত ভাবির ভাড়া বাসায় বিশ্রামের জন্য ওই স্কুল শিক্ষককে নিয়ে যান শিলা। পরে সেখানে শিলা এবং নুপুর নামের দুই নারীর সাথে স্কুল শিক্ষকের বিশেষ মুহুর্তের ছবি ভিডিও ধারণ করে তার কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা দাবি করেন। না দিলে ইন্টারনেটে ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেন।
গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানাচ্ছেন, সেখান থেকে বের হয়ে ৩৫ হাজার টাকা বিকাশে দিলেও তারা ওই স্কুল শিক্ষকে চাপ দিতে থাকলে তিনি কোতয়ালী থানায় মামলা করেন। পুলিশ জানাচ্ছে, এই চক্রটির বাকি সদস্যদের গ্রেফতারে সাড়াশি অভিযান চলছে। এরা এভাবে বিভিন্ন ব্যক্তিকে প্রথমে পরিচয়ের সূত্র ধরে সম্পর্ক তৈরি করে । পরে বেড রিলেশন এবং তা ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাক মেইলিং করে অর্থ কামাতো।

গ্রেফতাকৃতরা ভূয়া সেবিকা, শিক্ষিকা, ম্যাজিষ্ট্রেটসহ বিভিন্ন পরিচয়ে বিভিন্ন সময় ছদ্মনামে রংপুর মহানগরীসহ, পার্বতীপুর, দিনাজপুর, পঞ্চগড় এবং রংপুর বিভাগের বিভিন্ন জায়গায় এভাবে বিভিন্ন ব্যক্তিকে ফাঁদে ফেলে বিপুল পরিমানে টাকা আত্মসাৎ করে আসছে, জানাচ্ছেন পুলিশ।


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution