November 30, 2020, 2:41 am

Just In : আমাদের দেশের আইনের শাসনের ডেলিভারীকারীরা আপোষকামিতা করে : সুলতানা কামাল
আমাদের দেশের আইনের শাসনের ডেলিভারীকারীরা আপোষকামিতা করে : সুলতানা কামাল করোনা সন্দেহ: রংপুর থেকে একজনকে ঢাকায় স্থানান্তর   
আমাদের দেশের আইনের শাসনের ডেলিভারীকারীরা আপোষকামিতা করে : সুলতানা কামাল
সাংবাদিকের ওপর পুলিশি হামলার প্রতিবাদে টিসিএর অবস্থান ধর্মঘট “নো মাস্ক – নো সার্ভিস”- স্লোগানে রংপুরে করোনার দ্বিতীয় ডেউ সামলাতে মাঠে থাকবে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ- সাইফুল ইসলাম সুইট। রংপুরের শ্যামপুর চিনিকলের কর্মচারী ও চাষীদের মানববন্ধন রংপুর মহানগর ব্যাটরী চালিত চার্জার রিষ্কা -ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন পার্টির নবগটিত কমিটির পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত গৃহবধূর সাথে অপকর্মের সময় জনতার হাতে পুলিশ সদস্য আটক সিলেট সিটি মেয়রের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলেন বাংলার চোখ‘র চেয়ারম্যান তানবীর চলে গেলেন সর্বকালের অন্যতম সেরা ম্যারাডোনা সন্ধ্যার পর ঘরের বাইরে যেতে পারবেন না তরুণ-তরুণীরা রংপুরে চাচার বিচারের দাবিতে ভাতিজার মানববন্ধন‌ রংপুরে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ পুলিশের এএসআই আটক
বেরোবির সেই কর্মচারি খোরশেদের কুশপুত্তলিকা দাহ করল ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

বেরোবির সেই কর্মচারি খোরশেদের কুশপুত্তলিকা দাহ করল ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

বেরোবি প্রতিনিধি/ রংপুর ২৯ জুলাই 

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শিক্ষার্থী সাংবাদিকদের নিয়ে কটূক্তিকারী সেই কর্মচারি খোরশেদ আলমের স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২নং গেট সংলগ্ন পার্কের মোড়ে খোরশেদ আলমের স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে তার কুশপুত্তলিকা দাহ করে তারা।

কুশপুত্তলিকা দাহ করার সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, শিক্ষার্থীরা হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ। শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারি নিয়োগ দেয়া হয়। সেখানে কিনা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন তৃতীয় শ্রেনীর কর্মচারী, যিনি এখন পর্যন্ত ক্যাম্পাসে আসেনি তিনি আমাদের শিক্ষার্থী সাংবাদিকদের নিয়ে কটূক্তি করেছেন। যতক্ষণ না পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তার (খোরশেদ আলম) স্থায়ী বরখাস্ত করবে ততদিন আন্দোলন চালিয়ে যাযে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেনীর কর্মচারী খোরশেদ আলম তার ব্যক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে শিক্ষার্থী সাংবাদিকদের হকার, পতিতা, কীট, কুলাঙ্গার বলে কটূক্তি করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়।

এর পরেই ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদসহ খোরশেদ আলমের স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে সরব হয়ে ওঠে বেরোবির শিক্ষার্থীরা। তবে, খোরশেদ আলম বলেন, আমি যা কিছু করেছি (ফেসবুক স্ট্যাটাসে শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের আপত্তিকর মন্তব্য) অফিসিয়াল প্রসিডিউর মেইনটেইন করেই করেছি। কোন ধরনের অফিসিয়াল প্রসিডিউর এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার কলাম, নিউজ লেখালেখি সবকিছু সম্পর্কে ভাইস চ্যান্সেলর স্যার অবগত। আমি তাকে অবগত করেই সবকিছু করেছি।

প্রসঙ্গত, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গুটিকয়েক শিক্ষকদের সংগঠন ‘নব প্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ’র অনৈতিক ও দায়িত্বজ্ঞানহীন বিবৃতি এবং খোরশেদ আলমের এমন কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে চলছে সমালোচনার ঝড়। বেরোবি ক্যাম্পাসহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক সংগঠন ও সামাজিক সংগঠনগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে এর তীব্র প্রতিবাদ, নিন্দা ও বিচার দাবি করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah