সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০২ অপরাহ্ন

রংপুরে গর্ভবতী প্রসূতীর উপর হামলা বাচাতে গিয়ে স্বামী হাসপাতালে

রংপুরে গর্ভবতী প্রসূতীর উপর হামলা বাচাতে গিয়ে স্বামী হাসপাতালে

নিউজ ডেক্সঃ

রংপুরে স্বপ্না খাতুন নামে গর্ভবতী এক প্রসূতীর উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় স্ত্রীকে রক্ষা করতে গিয়ে স্বামী আবু রায়হান আলী হামলাকারী বরুন ও চম্পা রানীর রডের আঘাতে গুরুতর আহত হয়ে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে রংপুর মহানগরীর ধাপ ভগিলেন রবিউল ইসলাম সাজুর ভাড়াটিয়া বাসায়। এঘটনায় স্বপ্না খাতুন বাদী হয়ে কোতয়ালী আরপিএমপি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মামলার বাদী প্রসূতী স্বপ্না খাতুন জানায়, আমি ও আমার স্বামী আপডেট ডায়াগনোষ্টিক এ চাকুরী করি। পাশে রবিউল ইসলাম সাজুর বাসায় ভাড়া নিয়ে স্বামী স্ত্রী বসবাস করি। বর্তমানে আমি ৭ মাসের গর্ভবতী। গত শনিবার ১৭ জুলাই সকালে অফিসে যাওয়ার জন্য বের হলে আমার প্রতিবেশি ভাড়াটিয়া চম্পা রানী ও তার স্বামী বরুন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমার পথ রোধ করে আমাকে গালমন্দ শুরু করেন।

এসময় আমার স্বামী প্রতিবাদ করলে বরুন ও চম্পা রানী কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই তাদের হাতে থাকা লোহার রড় দিয়ে আমার স্বামী রায়হানের মাথায় ও সর্ব শরীরে আঘাত করতে থাকে। মারপিটের আঘাতে মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়ে আমার স্বামী মাটিতে লুঠিয়ে পড়ে। আমি স্বামীকে রক্ষা করতে গেলে তারা আমারও পেটে লাথি মারলে আমিও অজ্ঞান হয়ে পড়ে যাই। এসময় প্রতিবেশিরা উদ্ধার করে আমার স্বামীকে রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করায়। হামলাকারী বরুন ও চম্পা রানী বার বার স্বপ্না খাতুন ও রায়হানকে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন বলেন মামলার বাদী স্বপ্না খাতুন আরও জানান।

এবিষয়ে রংপুর কোতয়ালী আরপিএমপির থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদ জানান, স্বপ্না খাতুন বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছে। বিষয়টি দেখার জন্য ধাপ ফাড়ির এসআই মাহমুদুলকে দেয়া হয়েছে। তদন্ত শেষে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এব্যপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মাহমুদুল জানান, স্বাপ্না খাতুনের একটি অভিযোগ আমাকে দেয়া হয়েছে। আমি মামলাটির বিষয়ে আপডেটের ম্যানেজারের সাথে কথা বলেছি। তারা দুদিন সময় নিয়েছে বিষয়টি সমাধানের জন্য। তারা সমাধান করতে না পারলে আমরা অভিযোগ মুলে আইনগত ব্যবস্থা নিব।


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution