মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

রংপুরে বিভিন্ন জায়গায় খাদ্যের দাবিতে সড়ক অবরোধ

রংপুরে বিভিন্ন জায়গায় খাদ্যের দাবিতে সড়ক অবরোধ

এনপিনিউজ৭১/নিজেস্ব প্রতিবেদক/ ২০ এপ্রিল রংপুর

রংপুরে করোনার প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় দিনমজুর ও নিম্নআয়ের মানুষেরা খাদ্যের দাবিতে রংপুর নগরীর বিভিন্নস্থানে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। অভিযোগ, তাদের এখন পর্যন্ত সরকারি, বেসরকারি উদ্যোগে বিতরণ করা কোনো খাদ্য সহায়তা পৌঁছেনি। পরিবার পরিজন নিয়ে খেয়ে না খেয়ে মানবেতর দিন কাটছে তাদের।

সোমবার দুপুরে রংপুর নগরীর চারতলা মোড় ট্রাক স্ট্যান্ড সড়ক, বদরগঞ্জ রোডের মুন্সির মোড়সহ পৃথক চারটি স্থানে খাদ্যের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে শত শত নারী-পুরুষ। এসময় বিক্ষুব্ধদের সাথে পরিবারের ছোট শিশু-কিশোররাও অংশ নেন।


এদিকে সড়ক অবরোধের কারণে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক দিয়ে জরুরী সেবায় নিয়োজিত যানবাহন চলাচল ব্যাহত হয়। এসময় বিভিন্ন স্থানে সাময়িক যানজট দেখা দেয়। বিকল্প সড়কগুলোতে স্থানীয় এলাকাবাসীর বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে।
সকালে নগরীর বদরগঞ্জ রোডে নজিরেরহাট মুন্সির মোড় ও পীরগাছার কদমতলি এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে ত্রাণ সুবিধা বঞ্চিত শত শত নারী-পুরুষ।
বিক্ষুব্ধরা অভিযোগ তুলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে তারা এক মাসেরও বেশি সময় ধরে বাড়িতে আছেন। কিন্তু এই কর্মহীন সময়ে পরিবার পরিজন নিয়ে খেয়ে না খেয়ে কষ্টে দিনযাপন করলেও এখন পর্যন্ত কোনো ত্রাণ সহায়তা তাদের দেয়া হয়নি। বাধ্য হয়ে খাদ্যের দাবিতে পথে নেমেছেন বলেও তারা জানান।

এদিকে বিক্ষোভের খবর পেয়ে বেলা সাড়ে এগারোটায় একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্ব কোতোয়ালী থানার ওসি আব্দুর রশিদ নজিরেরহাটে মুন্সির মোড়ে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে চেষ্টা করেন। এসময় দ্রুত সময়ের মধ্যে খাদ্য সরবরাহ করার আশ্বাস পেয়ে বিক্ষোভকারীরা সড়ক অবরোধ তুলে নিয়ে বাড়ি ফিরে যান। একইভাবে পীরগাছা থানার ওসি রেজাউল করিম ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীকে ত্রাণের ব্যবস্থা করে দেয়ার আশ্বাস দেন।


অন্যদিকে দুপুর ১২টার দিকে রংপুর নগরীর পুরাতন ট্রাক স্ট্যান্ড ও চারতলা মোড় এলাকায় সড়ক অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন ত্রাণ সুবিধা বঞ্চিতরা।
তাদের অভিযোগ, সংসদ সদস্য সাদ এরশাদ ও ওয়ার্ড কাউন্সিলররা ত্রাণ দেয়ার আশ্বাস দিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি নিলেও এখন পর্যন্ত কোনো ত্রাণ দেয়নি। বরং পর্যায়ক্রমে দেয়া হবে বলে বলে এক মাসের বেশি সময় অতিক্রম করেছে। এতে অসহায় দিনমজুর পরিবারগুলোতে খাদ্য সংকট সৃষ্টি হয়েছে। সড়ক অবরোধের খবর পেয়ে পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা বেলা সাড়ে বারটার দিকে ঘটনাস্থলে এসে খাদ্য সরবরাহের আশ্বাস দিলে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেয়।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ জানান, নগরীর দু-একটি স্থানে খাদ্যের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে এলাকার কর্মহীন মানুষরা। পরে প্রশাসনের খাদ্য সহায়তার আশ্বাস পেয়ে তারা চলে গেছে।

এনপি৭১/মেহি

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah