Just IN :

রংপুরে ১৩ দিন থেকে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী রিফা নিখোঁজ

রংপুরে ১৩ দিন থেকে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী রিফা নিখোঁজ

রংপুরে ১৩ দিন থেকে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী রিফা নিখোঁজ

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর
রংপুর মিঠাপুকুরে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী মোছাঃ ফাহমিদা ইয়াসমিন রিপা (১৩) নিখোঁজ ১৩ দিন থেকে। গত (১৭ নভেম্বর) রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার ২ নং রাণীপুকুর ইউনিয়নের, বলদীপুকুর নয়াপাড়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্যের মৃত. আলহাজ্ব আঃ সালামের নাতনী, ফিরোজ মিয়ার মেয়ে মোছা: ফাহমিদা ইয়াসমিন রিপা (১৩)। রিফা রংপুর সিদ্দিক মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী। রিফা ২০১৯ সালে জে.এস.সি পরীক্ষা শেষ করে তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করিত।

কিন্তু গত ১৭ নভেম্বর সে তার বাসা থেকে ফুফুর বাড়ি মিঠাপুকুর থানাধীন বাতাসন দূর্গাপুর যাওয়ার পথে অত্র থানাধীন বলদীপুকুর মৌজাস্থ স্বপন মোড় নামক স্থানের আনুমানিক ২শ গজ পূর্বে পাকা রাস্তা হতে পার্শ্ববর্তী ০২ নং রাণীপুকুর ইউপি, হাবিবপুর গ্রামের মজিবর রহমানের পুত্র মোঃ তারিকুল ইসলাম (২৭) নামের ব্যাক্তি একটি মাইক্রো যোগে এসে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে অপহৃত ব্যাক্তির পরিবার বিভিন্ন যায়গায় খোঁজাখুঁজি করিয়া না পাইয়া ১৮ নভেম্বর মিঠাপুকুর থানায় একটি লিখিত এজহার দায়ের করে। কিন্তু এজহারের ১১ দিন পেরিয়ে গেলেও কোন প্রকার সন্ধান মেলেনি ফাহমিদা ইয়াসমিন রিফার।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, ইতিপূর্বে স্কুল ও প্রাইভেটে যাতায়াত কালে তারিকুল ইসলাম, ফাহমিদা ইয়াসমিন রিফা (১৩)কে বিভিন্ন প্রকার কু-প্রস্তাাবসহ উত্তাক্ত করতো তারিকুল ইসলাম। উক্ত বিষয়ে রিফার বাবা অভিযুক্ত ব্যাক্তির পিতা মাতাকে অবগত করিলে তারিকুল ঐ মেয়েকে যে কোন ক্ষতি সাধনসহ অপহরন করার হুমকি প্রদান করিয়াছিল। সেজন্যই সে এই না-বালিকা মেয়ের উপর প্রতিশোধ নিয়েছে।

এ বিষয়ে রংপুর মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ জাফর আলী বিশ্বাসের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমরা মিঠাপুকুর থানা পুলিশ লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর থেকেই অভিযান চালিয়ে যাচ্ছি, আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে রিফাকে উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে পারবো।

রিফার বাবা ফিরোজ অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার মেয়ের বয়স কেবল ১৩ বছর বাড়িতে কোন মোবাইল ফোন ও নেই, যেটা আছে সেটা আমাদের কাছে থাকে। আমরা ব্যবহার করি,সুতরাং সে প্রেম ঘটিত কারণে গেছে কিনা সেটাও নিশ্চিত না আমরা। তবে আমাদের কথা হলো মেয়েটা নিখোঁজের পর থেকে আমি কিংবা আমাদের কোন আতœীয় স্বজন কারো সাথে কোন যোগাযোগ করে নি রিফা। মেয়েটি জীবিত কি মৃত তাও বোঝা যাচ্ছে না এবং অপহরনকারী মেয়েটির কোন খোঁজ পর্যন্ত দিচ্ছে না আমরা আশা করি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আমাদের পরিবারে মেয়েটিকে ফিরে দিতে বা সন্ধান যোগাড় করে দিতে সহায়তা করবে। কিন্তু আজ ও রিফার নিখোঁজের প্রায় ১৩ দিন পার হবে আর কত লাগবে তাকে উদ্ধার করতে একথা বলে তার বাবা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে।

 

এনপিনিউজ৭১/মেহি

Related Posts