সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২০ পূর্বাহ্ন

রংপুর নগরীতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে এক যুবককে কুপিয়ে হাড় ভেঙ্গে পঙ্গু করে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা

রংপুর নগরীতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে এক যুবককে কুপিয়ে হাড় ভেঙ্গে পঙ্গু করে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক মিজানুর নামক এক যুবকে সন্ত্রাসী কায়দায় বেদম মারপিট করে পঙ্গু করে দিয়েছে প্রতিপক্ষ সামচ্ছুল গংরা। ঘটনাটি ঘটেছে রংপুর নগরীর ১৭ নং ওয়ার্ডের পার্বর্তীপুর এলাকায়। আহত মিজানুর গত ৭ জুন থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩ তলার ৬ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এদিকে ওই ঘটনায় মিজানুরের বাবা মেহেতুল মিয়া রংপুর মেট্রেপলিটন কোতয়ালী থানায় সামচ্ছুল,বেলাল, শফিকুল,মোস্তাকিন, মুসা, আরমানসহ ৬ জনকে আসামী করে মামলা করেছেন।
পুুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, রংপুর মেট্রেপলিট্রন ১৭ নং ওয়ার্ডের পারবর্তীপুর এলাকার মেহেতুলের পুত্র ও মোহাম্মদ আলীর পুত্র শফিকুলের সাথে টাকা পয়সা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গত ৭ জুন শফিকুল ইসলাম মিজানুরকে পারবর্তীপুর দাখিল মাদ্রাসার সমানে একাকি পাইয়া মারপিট ও ভয়ভীর্তি প্রদর্শন করে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ভাবে মিমাংসাও হয়। পরবর্তীতে ওই দিনে আসামী বেলাল মিয়া মিজানুরকে মোবাইল ফোন করে ডেকে নেয়। সেখানে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সামচ্ছুল গংরা মিজানুরকে একাকি পাইয়া লোহার পাইপ দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে বামপা ও ডান হাত জোড়ালো আঘাতে হাড় ভেঙ্গে ঘুড়িয়ে দেয়। তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়া তাকে সাথে সাথে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মিজানুর রংপুর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
এদিকে মিজানুরের বাবা মেহেতুল মিয়া গত সোমবার রংপুর মেট্রেপলিটন কোতয়ালী থানায় ৬ জনকে আসামী করে একটি মামলা করেন (যারনং ১২/২৭৯)।
মেহেতুল ইসলাম বলেন, শফিকুল ইসলাম ও তার লোকজন বিনা দোষে আমার নিরীহ ছেলেটিকে সন্ত্রাসী কায়দায় মেরে পঙ্গু করে দিয়েছে। এদের আমি উপযুক্ত বিচার চাই। আসামীরা প্রকাশ্যে ঘোরা ফেরা করছে। মামলা হওয়ার পরেও আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় আমি হতাশ হয়েছি।
মিজানুরের মাতা-মামতাজ বেগম বলেন, আমার ছেলেকে যারা বিনাদোষে মেরে পঙ্গু করে দিয়েছে আল্লাহ যেন তাদের বিচার এ পৃথিবীতে করে।
তদন্তকারী দারোগা মুর্শিদ আলম জানান, ঘটনার পরে অভিযোগ পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। সাময়িকভাবে মারপিটের ঘটনা সত্যাতা পেয়েছি।
কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদ বলেন, অভিযোগ পেয়ে মামলা নিয়েছি। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।


© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এনপিনিউজ৭১.কম
Developed BY Rafi It Solution