বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:০২ অপরাহ্ন

সৈয়দপুরে ইসলামী ব্যাংকের ৬ কর্মকর্তার করোনা পজেটিভ ॥ ১৩ বাড়ি লকডাউন

সৈয়দপুরে ইসলামী ব্যাংকের ৬ কর্মকর্তার করোনা পজেটিভ ॥ ১৩ বাড়ি লকডাউন

এনপিনিউজ৭১/ শাহজাহান আলী মনন/৩ মে

নীলফামারীর সৈয়দপুরের বাংলাদেশ ইসলামী ব্যাংক এর ৬ কর্মকর্তার শরীরে নোভেল করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ৩ মে রবিবার সকালে এ সংক্রান্ত তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মণ। এর মধ্যে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র হতে ৪ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ার রির্পোট পাওয়া গেছে। এই ৩ জন কর্মকর্তার মধ্যে তিনজনের বাড়ি সৈয়দপুর শহরে ও একজনের নীলফামারী পৌরসভার প্রগতিপাড়ায়।
অপর ৩ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে। একইদিনে প্রাপ্ত করোনা পজেটিভ ওই ৩ জনের বাড়ি রংপুর শহরে। তারা সেখান থেকে সৈয়দপুরে যাওয়া-আসা করতেন। ফলে ইসলামী ব্যাংক সৈয়দপুর শাখার মোট ৬ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরা হলেন- যথাক্রমে সিনিয়র অফিসার আহসান হাবিব, জুনিয়র অফিসার বজলুর রশিদ, অফিসার ফিরোজ শাহ, সেকেন্দার আলী, আমিরুল ইসলাম, সিকিউরিটি গার্ড ইব্রাহিম খলিল।

গত ২৮ এপ্রিল সৈয়দপুর ইসলামী ব্যাংকের ১৩ জন কর্মকর্তা একযোগে করোনা উপসর্গ জ্ব্র-স্বর্দি-কাশি ও গলাব্যাথা নিয়ে অসুস্থতাবস্থায় কাজে আসেন। একারণে সেদিনই ব্যাংকের শাখাটি লকডাউন ঘোষণা করা হয় এবং আক্রান্তদের নমুনা সংগ্রহের কার্যক্রম শুরু করে প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। আজ সৈয়দপুরে অবস্থানকারী ২ ব্যাংক কর্মকর্তার বাড়িসহ আশেপাশের মোট ১৩টি বাড়ি এবং দোকান ও হোটেল লকডাউন করেছে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার। এ সময় তার সাথে ছিলেন মেডিকেল অফিসার ডাঃ আরমান হোসেন রনি ও ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন পাপ্পু। তারা পিপিই পরিধান করে এসব বাড়ী লগডাউন করেন।

এ ব্যাপারে নিজ ফেসবুক পেজে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার স্ট্যাটাস দিয়ে বলেন, অবশেষে আশংকাই সত্যি হলো। ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড সৈয়দপুর শাখায় কর্মরত এ পর্যন্ত ৬ জন করোনা পজিটিভ। এর মধ্যে দুইজনের বাসা সৈয়দপুরেই। খবর পাওয়ার সাথে সাথেই মোট ১৩ টি পরিবারকে লকডাউন করা হয়। একজন থাকেন দিনাজপুর রোডে ইসলামী ব্যাংকের পাশেই জনাব শহীদুল প্রফেসরের বাসায়, অন্যজন কয়ানিজপাড়া নীমবাগান এলাকায় কনসার্ন অফিসের পাশে।
জনগণের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি জানান, আপনার প্রতিবেশী বা আত্মীয় কেউ ইসলামী ব্যাংক সৈয়দপুর শাখায় কাজ করলে তাকে সতর্ক করুন, নিজে সতর্ক থাকুন, প্রয়োজনে প্রশাসনের সহযোগিতা নিন এবং ডাক্তারের মাধ্যমে পরীক্ষা করুন।
আপনারা যারা বিগত ১৪ দিনের মধ্যে উক্ত শাখায় গেছেন এবং লেনদেন করেছেন অথবা বুথ থেকে টাকা তুলেছেন। তিনিও সতর্ক থাকুন, নিজেকে কমপক্ষে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন করুন।
উক্ত দুই শ্রেণির যেকোন মানুষের সাথে যদি আপনার গত ১৪ দিনের মধ্যে ওঠাবসা হয়ে থাকে বা তাদের কারো বাসায় বেড়াতে গিয়ে থাকেন তবে আপনিও সতর্ক থাকুন। আপনার সামান্য অসচেতনতাই পুরো সমাজকে বিপদে ফেলতে পারে। ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন।

এনপি৭১/নীলফামারী

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah