শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

সৈয়দপুরে করোনা সন্দেহে এক ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ : পুরো বাড়ি লকডাউন

সৈয়দপুরে করোনা সন্দেহে এক ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ : পুরো বাড়ি লকডাউন

এনপিনিউজ৭১/ শাহজাহান আলী মনন/ ৯ এপ্রিল রংপুর

নীলফামারীর সৈয়দপুরে এক ব্যক্তির করোনা সংক্রমন সন্দেহে নমুনা সংগ্রহ করে পুরো বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকালে শহরের কুন্দল পূর্বপাড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, ওই এলাকার মৃত. আলীর ছেলে রিক্সা চালক জাহিদুল ইসলাম গত প্রায় ৭ দিন যাবত জ্বর, স্বর্দি, কাশি ও বুকের ব্যাথায় আক্রান্ত। স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিলেও কোন উপকার হচ্ছেনা। এমতাবস্থায় প্রতিবেশিরা তার করোনা সংক্রমন হয়েছে মর্মে অভিযোগ করে এলাকার ওয়ার্র্ড কাউন্সিলরের কাছে। এর প্রেক্ষিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন পাপ্পু বিষয়টি সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের করোনা ইউনিট কে অবহিত করেন। পরে ওই ইউনিটের তত্বাবধায়ক স্বাস্থ্য বিভাগের উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ শহিদুজ্জামানের নেতৃত্বে জাহিদুলের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এবং তাকেসহ পরিবারের সকল সদ্যদের বাড়িতে তালাবদ্ধ করে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। এসময় পৌর পরিষদের পক্ষ থেকে তাদের জন্য এক সপ্তাহের খাবার বাবদ ১০ কেজি চাল, আলু ৩ কেজি, তেল ১ কেজি, মশুর ডাল ও লবন আধা কেজি করে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় পুরো এলাকা জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

সৈয়দপুর পৌরসভার ১১ ওয়ার্ড কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন পাপ্পু জানান, যেহেতু জাহিদুল দীর্গ প্রায় ১ সপ্তাহ থেকে অসুস্থ্য এবং লক্ষণগুলো করোনার উপসর্গের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। তাই এলাকাবাসী খবরটি জেনে ভীত হয়ে পড়েছেন। একারণে আমরা বিষয়টি সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য বিভাগকে জানিয়েছি। তারা পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করেছে। সে সাথে তার বাড়িটি লকডাউন করেছে। এসময় তাদের যাতে কোন অসুবিধা না হয় সেজন্য পৌরসভার পক্ষ থেকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে।

সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের করোনা ইউনিট তত্বাবধায়ক স্বাস্থ্য বিভাগের উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ শহিদুজ্জামান বলেন, সন্দেহভাজন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে রংপুরের করোনা টেস্ট ইউনিটে প্রেরণ করা হয়েছে। নমুনার টেস্ট রিপোর্ট আসলেই তিনি করোনা সংক্রমিত কি না তা নিশ্চিত হওয়া যাবে। ততক্ষণ পর্যন্ত তার পুরো পরিবার বাড়িতে লকডাউন অবস্থায় থাকবেন।

পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার বলেন, জাহিদুলের পরিবারকে এক সপ্তাহের খাদ্য সামগ্রী দিয়ে লকডাউন করা হয়েছে। নমুনার টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে তা তুলে নেওয়া হবে আর যদি পজেটিভ আসে তাহলে স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্র্শ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে এসময় পর্যন্ত তার পরিবারের সকলকে হোম কোয়ারেন্টাইনে যথাযথভাবে থাকার অনুরোধ জানাই।

সে সাথে এলাকাবাসীকে আতঙ্কগ্রস্থ না হয়ে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে নিজ নিজ অবস্থানে নিয়ম মেনে চলার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

এনপি৭১/মেহি/ নীলফামারী

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah