সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৩:৩৭ অপরাহ্ন

সৈয়দপুরে দোকান মালিকের বিরুদ্ধে ভাংচুর ও লুটের মামলা

সৈয়দপুরে দোকান মালিকের বিরুদ্ধে ভাংচুর ও লুটের মামলা

শাহজাহান আলী মনন/ সৈয়দপুর ১৯ জুন

উত্তরবঙ্গের সর্ববৃহৎ বানিজ্য কেন্দ্র নীলফামারীর সৈয়দপুর প্লাজার দোকান মালিক একরাম হোসেন (৫০) এর বিরুদ্ধে দোকান লুট ও ভাংচুরের অভিযোগে মামলা হয়েছে। মামলা করেছেন একই মার্কেটের তরুন ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা রেড চিলি চাইনিজ রেস্টুরেন্টের মালিক মমিনুল ইসলাম মিটু। জানা যায়, একরাম হোসেনের কাছ থেকে মার্কেটের ফ্রন্ট সাইটে  চুক্তিতে দোকান নেয় মিঠু। যেখানে তার আরেকটি প্রতিষ্ঠান মিঠু কম্পিউটার এন্ড মোবাইল জগৎ  এর ভিভো শো- রুম দেয় সে। এই দোকান নিয়ে সৃষ্ট বিবাদের সূত্র ধরেই মিঠু বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নং-১৪ তাং-১৭/৬/২০। মামলায় একরাম হোসেনের দুই পুত্র এনামুল হক (২৫) ও তারেক (২২) সহ অজ্ঞাত আরো  ১০/১২ জনকে আসামী করা হয়েছে । আসামীদের বাসা শহরের চাঁদনগর এলাকায়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ব্যবসায়ী মমিনুল ইসলাম মিঠু প্লাজার ব্লক-জি এর ৯ নং এবং তাঁর ভাই মক্কা বোরকা হাউজের মালিক মোসলেম উদ্দীন লিখিত চুক্তিতে একরাম হোসেনের দোকান ভাড়া নেয় । কিন্ত ওই দোকানের মালিক চুক্তি ভঙ্গ করে দোকান ছাড়ার নোটিশ প্রদান করে ।
বাদী মমিনুল ইসলাম নোটিশের জবাব দেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে । কিভাবে মিঠুকে দোকান থেকে বিতারিত করা যায়। সেই পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আসামীগন অজ্ঞাত ১০/১২ জন ভাড়াটে বাহিনী নিয়ে গত ২২ মে ২৮ রমজান বাদীর এবং বাদীর ভাইয়ের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসে কর্মচারীকে মারডাং,দোকান ভাংচুর, ক্যাশ বাক্স থেকে টাকা লুট করে নিয়ে যায় । যাওয়ার সময় হুমকি ও উভয় দোকানে তালা দিয়ে চলে যায় ।
ফলে বাদী ও বাদীর ভাইয়ের দুই দোকানে ঈদ বাজারের জন্য ২৮ লাখ টাকা মূল্যের সামগ্রী বিপনন-বিক্রি বন্ধ হয়ে যায় । এতে বাদী ও বাদীর ভাই আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। বিষয়টি আসামী পক্ষ মিমাংসার কথা দীর্ঘ দিন ধরে কালক্ষেপন করে। শেষে সুরাহা না হওয়ায় বাধ্য হয়ে মামলা করেন মমিনুল ইসলাম মিঠু। তিনি সচেতন মহল ও প্রশাসনের কাছে ন্যায় বিচার দাবী করেছেন। সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah