বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন

রংপুরে শহীদ মুখতার ইলাহী স্মৃতিস্তম্ভ পুণঃনির্মাণ দাবি

রংপুরে শহীদ মুখতার ইলাহী স্মৃতিস্তম্ভ পুণঃনির্মাণ দাবি

নিজেস্ব প্রতিবেদক/ রংপুর ১ জুন

রংপুরে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মুখতার ইলাহীর নামে স্থাপিত স্মৃতিস্তম্ভের নামফলক ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এঘটনার প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।সোমবার (১ জুন) দুপুরে নগরীর মেডিকেল মোড়ে শহীদ মুখতার ইলাহীর চত্বরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশ থেকে স্মৃতিস্তম্ভ ভাংচুরে জড়িত অপরাধীদের খুঁজে বের করে দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে শাস্তির ব্যবস্থা এবং স্মৃতিস্তম্ভটি পুণঃনির্মাণের দাবি জানানো হয়।


স্বাধীনতা বিরোধি অপশক্তির মদদে রাতের আধারে শহীদের নামে তৈরি স্মৃতিস্তম্ভ ভাংচুরের ঘটনা ন্যাক্কারজনক দাবি করে বক্তারা বলেন, রংপুরে যারা মুক্তিযুদ্ধের সম্মুখ যোদ্ধা ছিলেন, তাদের মধ্যে মুখতার ইলাহী চিনু অন্যতম। একাত্তরের ৯ নভেম্বর মুখতার ইলাহীর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা সাহসিকতার সাথে হানাদারদের মোকাবেলা করেন। কিন্তু তারা সংখ্যায় কম হওয়ার কারণে সেই লড়াইয়ে ঠিকে থাকতে পারেনি। সেই দিন মুখতার ইলাহীসহ ৫৪ জন মুক্তিকামী জনতাকে নির্মম ভাবে হত্যা করে পাকিস্তানি বাহিনী। তারপরও মুখতার ইলাহীর গড়া মুজিব বাহিনী পিছু পা হয়নি। তারা ওই ঘটনার এক মাসের মধ্যে রংপুর শহরকে শত্রু মুক্ত করেন।এই সাহসি মুক্তিযোদ্ধার নামে গড়া স্মৃতিস্তম্ভের নামফলক ভাংচুরের ঘটনার সুষ্ঠুতদন্ত, অপরাধীদের গ্রেফতার ও স্মৃতিস্তম্ভ পুণঃনির্মাণ করা না হলে সমাবেশ থেকে বৃহত্তর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেয়া হয়।

এতে বক্তব্য রাখেন, জনতার রংপুর এর আহবায়ক ডা. সৈয়দ মামুন, রংপুর জেলা ক্যামিস্ট এন্ড ড্রাগস্ট সমিতির সাধারণ সম্পাদক মারুফ ইলাহী, আইনজীবি ও সংগঠক বেলাল আহমেদ, সাংবাদিক মাহবুব রহমান হাবু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, রোববার (৩১ মে) রংপুর মহানগরীর মেডিকেল মোড়ে শহীদ মুখতার ইলাহী চত্বরের স্মৃতিস্তম্ভ ফলক ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৭ সালের ৪ জানুয়ারী তৎকালীন সিটি মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু এই স্মৃতিস্তম্ভটি নির্মাণ করেন।
এনপি৭১

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2020-21 npnews71.com
Developed BY Akm Sumon Miah